Change privacy settings
আন্তর্জাতিক

পদত্যাগ করলেন নরেন্দ্র মোদি

নতুন সরকার গঠনের লক্ষ্যে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর কাছে পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। বুধবার দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করে এই পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন তিনি। শরীক দলগুলো বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোটের সঙ্গে থেকে সরকার গঠনের প্রতিশ্রুতি দেওয়ায় বুধবার পদত্যাগ করেছেন নরেন্দ্র মোদি।

দেশটির সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি বলেছে, দিল্লিতে রাষ্ট্রপতি ভবনে রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এ সময় নতুন সরকার গঠনের লক্ষ্যে পুরো মন্ত্রিসভাসহ নিজের পদত্যাগপত্র রাষ্ট্রপতির কাছে জমা দিয়েছেন তিনি। তবে নতুন সরকার গঠন না হওয়া পর্যন্ত সরকার পরিচালনা কাজ চালিয়ে যেতে নরেন্দ্র মোদির প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু।

বুধবার ভারতের ৫৪৩ আসনের লোকসভার চূড়ান্ত ফল ঘোষণা করা হয়েছে। এই নির্বাচনে নরেন্দ্র মোদির রাজনৈতিক দল ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা পায়নি। দেশটিতে সরকার গঠনের জন্য ২৭২ আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা প্রয়োজন হলেও বিজেপি এককভাবে ২৪০ আসন পেয়েছে। ফলে এককভাবে সরকার গঠন করতে পারছে না দলটি।

এখন সরকার গঠনের জন্য এনডিএ জোটের শরীকদের ৫৩ আসনের ওপর নির্ভর করতে হচ্ছে বিজেপিকে। বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ জোট ২৯৩ আসনে জয় পেয়েছে। অন্যদিকে, দেশটির বিরোধীদল কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন জোট ইনডিয়া ২৩৩ আসন পেয়েছে। এর মধ্যে কংগ্রেস এককভাবে পেয়েছে ৯৯ আসন।

লোকসভা আসন সংখ্যার হিসাব অনুযায়ী, সব কিছু ঠিক থাকলে কেন্দ্রে সরকার গড়বে এনডিএ। যদিও নির্বাচনের ফলাফল প্রকাশের একদিন পর দিল্লিতে এখন চলছে মেরুকরণের খেলা। সরকার ভাঙতে-গড়তে তৎপর হয়ে উঠেছে দু’পক্ষই।

বুধবার সকালের দিকে লোকসভার নির্বাচনী ফলাফল নিয়ে মন্ত্রিসভার সদস্যদের সঙ্গে আলোচনা করতে বৈঠকে বসেন নরেন্দ্র মোদি। ওই বৈঠকে দেশটিতে পরবর্তী সরকার গঠনের নানা বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়েছে বলে বৈঠকের একাধিক সূত্র জানিয়েছে।

এনডিটিভি বলছে, সকাল সাড়ে ১১টায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাসভবনে বৈঠক শুরু হয়। এটি ছিল মোদির মন্ত্রিপরিষদের শেষ বৈঠক। এদিকে, এনডিএর জ্যেষ্ঠ নেতারা জোটের বৈঠকে অংশ নিতে দিল্লিতে যাত্রা শুরু করেছেন। এনডিএ জোটের এই বৈঠক বিকেল ৪ টায় হওয়ার কথা রয়েছে। ওই বৈঠকে এনডিএ নেতারা সরকার গঠনের বিস্তারিত বিষয়ে আলোচনা করবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

বিহারের জনতা দলের (ইউনাইটেড) প্রধান ও সেখানকার মুখ্যমন্ত্রী নীতিশ কুমার এবং অন্ধ্রপ্রদেশের তেলেগু দেশম পার্টির প্রেসিডেন্ট চন্দ্রবাবু নাইডু এনডিএর বৈঠকে যোগ দেবেন বলে জানা গেছে।

দেশটির রাজনৈতিক একাধিক সূত্র বলেছে, মিত্ররা ইতিমধ্যে নরেন্দ্র মোদির তৃতীয় মন্ত্রিসভার জন্য বিজেপির কাছে তাদের দাবি পাঠাতে শুরু করেছে। জনতা দল (ইউনাইটেড) মোদির মন্ত্রিসভায় তিনটি আসন চেয়েছে। এছাড়া জোটসঙ্গী একনাথ শিণ্ডের শিবসেনা গোষ্ঠী মন্ত্রিসভায় একটি ও রাজ্যে দুটি আসন চেয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Discover more from ঝিনেদা টিভি

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading