Change privacy settings
সারাদেশ

কুয়াকাটার পর্যটন ব্যবসায় দাবদাহের প্রভাব, বাতিল হচ্ছে বুকিং

সারাদেশে চলমান তীব্র তাপপ্রবাহের কারণে পর্যটন শিল্পে নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে। এর প্রভাবে সাগরকন্যা কুয়াকাটায় মন্দা চলছে। তীব্র গরমের কারণে পর্যটক শূন্য হয়ে পড়েছে কুয়াকাটা। অনেক পর্যটক তাদের অগ্রিম বুকিং বাতিল করছে। আবার কেউ কেউ দুই-তিন দিন থাকার জন্য এসে গরমের দাপটে ফিরে যাচ্ছেন একদিন থেকেই। এতে কাঙ্ক্ষিত পর্যটক পাচ্ছে না পর্যটন সংশ্লিষ্ট ব্যবসায়ীরা। আবহাওয়া অফিস বলছে আরও একসপ্তাহ অপরিবর্তিত থাকতে পারে বর্তমান অবস্থার। 

মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) কুয়াকাটার বেশ কয়েকটি হোটেল মালিকের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, ঈদ পরবর্তী সময় কুয়াকাটা পর্যটকদের আগমনে সরগরম থাকে। তবে প্রতিবছরের চেয়ে এবার ঈদের পর পর্যটকের সংখ্যা বাড়লেও হঠাৎ পর্যটকের সংখ্যা কমে গেছে। টানা দাবদাহের কারণে হোটেলের অগ্রিম বুকিং বাতিল করছেন অনেকেই।

হোটেল সাগরের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মাসুদ পারভেজ সাগর জানান, প্রতিবছর ঈদ পরবর্তী সময় হোটেলের প্রায় ৫০-৬০ শতাংশ কক্ষ বুকিং থাকে। কিন্তু এ বছর মাত্র ২০ শতাংশ বুকিং ছিল। গত দুইদিন আগে বুকিং দেওয়া ৪টি রুম দুইটি পরিবার আজ বাতিল করেছে। তারা বলছেন, অতিরিক্ত গরমের কারণে শিশু ও পরিবারের লোকজন নিয়ে নিরাপদ মনে করছেন না।

কুয়াকাটা হোটেল-মোটেল ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক মোতালেব শরীফ বলেন, গরমে পর্যটক এসে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ছেন। যে কারণে মানুষ এসে টিকতে পারছেন না। ঈদুল ফিতর উপলক্ষ্যে কিছু পর্যটক আসছিল এরপর থেকে প্রচণ্ড গরমের কারণে বর্তমানে হোটেল-মোটেলের কক্ষগুলো বেশিরভাগই ফাঁকা রয়েছে। লবণাক্ত পানিতে শরীর শুষ্ক হয়ে যাচ্ছে। তবে আবহাওয়া পরিবর্তন হলে আবারও পর্যটক আসবে বলে মনে করছি।

ট্যুরিস্ট পুলিশ কুয়াকাটা রিজিয়নের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আবুল কালাম আজাদ বলেন, অতিরিক্ত তাপমাত্রার কারণে আমরা পর্যটকদের বারবার মাইকিং করে সাবধানে থাকতে বলছি। এছাড়াও আমাদের সদস্যরা বাড়তি নজরদারি রাখছে যাতে কোনো পর্যটক অসুস্থ হলে দ্রুত চিকিৎসা দেওয়া যায়।

এ বিষয় খেপুপাড়া আবহাওয়া অফিসের ইনচার্জ প্রকৌশলী আ. জব্বার শরীফ বলেন, কুয়াকাটায় তাপমাত্রা আগের চেয়ে বেশি। এখনই পর্যটকদের লাইট জামাকাপড় পড়ে থাকতে হবে। এ পরিস্থিতিতে পর্যটকসহ স্থানীয়দের সাবধানতা অবলম্বন করে চলাফেরা করতে বলা হয়েছে।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button

Discover more from ঝিনেদা টিভি

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading